মোট ৬১ টি পদকের মধ্যে ৫৪টি পদক জেতা হয়েছে সেইসমস্ত খেলোয়াড় দ্বারা যারা এবছরেই প্রথম এই খেলায় অংশগ্রহণ করেছে।

এতদিন জ্যাভেলিনে নিরাজ চোপড়া কে জেনে এসেছি আমরা, কিতু এবারের কমনওয়েলথ গেমে আন্নু রানি ব্রোঞ্জ পদক জিতে মহিলাদের জ্যাভেলিনে  আত্মপ্রকাশ করলো।

২০১০ এর কমনওয়েলথ গেমে ভারত সব থেকে বেশি পদক পেয়েছিল (১০১ টি পদক)। এবছরে শুটিং এবং আর্চারি এই দুটি খেলা না থাকায় পদক সংখ্যা এত কম। 

এবছরের কমনওয়েলথ গেমে ভারতের টেবিল টেনিস খেলোয়াড় শরত কমল একাই ৪টি পদক পেয়েছেন (৩ টি সোনা এবং ১ টি রুপো) 

পদক সংখ্যা টেবিল অনুসারে, শরত কমলের পদক সংখ্যা ৫৪টি দেশের পদক সংখ্যা থেকে বেশি।  অর্থাৎ শরত কমল নিজে যদি একটা দেশ হত তাহলে পদক তালিকায় ১৭তম স্থানে থাকতো।

এবছরের কমনওয়েলথ গেমসের সব থেকে কম বয়সের ভারতীয় প্রতিযোগী হল অনাহথ সিং মাত্র ১৪ বছর বয়স। অনাহথ সিং একজন স্কোয়াশ প্লেয়ার। 

সব থেকে বয়স্ক ভারতীয় প্রতিযোগী  হলেন সুনিল বাহাদুর, ৪৫ বছর বয়সী লন বল খেলোয়াড়। ভারতের হয়ে প্রথম পদক জেতেন সংকেত সাগর, ভারত্তলনে রূপোর পদক জেতেন।

কমনওয়েলথ গেম ২০২২- এ ভারতের হয়ে প্রথম সোনার পদক জেতেন মীরাবাঈ চানু, মহিলাদের ৪৯ কেজি বিভাগে ভারত্তলনে সোনা জেতেন।

কমনওয়েলথ গেমস-এর কুস্তির প্রতিটি ইভেন্টে পদক জেতেন ভারতীয় কুস্তিবিররা, মোট ১২ জন প্রতিযোগী ১২টি পদক জেতেন।

 এবছরের মহিলাদের লন বল খেলাতে এবং পুরুষদের হাই জাম্প খেলাতে প্রথম পদক জেতেন ভারত। হাই জাম্পে পদক জেতেন তেজসবি শঙ্কর।