দুঃস্থ স্নাতক এবং স্নাতকোত্তর পড়ুয়াদের জন্য পশ্চিমবঙ্গ সরকারের ইন্টার্নশিপ প্রকল্প

এবার থেকে পড়াশোনার সাথে সাথে রোজগার করারও সুযোগ পাওয়া যাবে । এমনটাই পরিকল্পনা পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকারের।

স্নাতক-স্নাতকোত্তরদের জন্য ইন্টার্নশিপ প্রকল্প চালু করতে চলেছে পশ্চিমবঙ্গ সরকার। এই প্রকল্পে দুঃস্থ স্নাতক পড়ুয়াদের রাজ্যের বিভিন্ন প্রকল্পে ইন্টার্নশিপের সুযোগ দেওয়া হবে ।

ইন্টার্নশিপের মাধ্যমে শিক্ষার্থীরা রাজ্যের বিভিন্ন সরকারি অফিসে কীভাবে কাজ করতে হয় তা শেখার সুযোগ পাবে। খুব শীঘ্রই এই ইন্টার্নশিপের বিষয়টি চালুকরার দিকে এগোচ্ছে রাজ্য সরকার। 

শিক্ষার্থীরা স্নাতক স্তরে পাশ করার পরই হাতে কলমে কাজ শেখার পাশাপাশি রোজগারের সুযোগও পাবে। কেবল মাত্র পশ্চিমবঙ্গের বাসিন্দা হলে তবেই ইন্টার্নশিপের সুবিধা পাবে পড়ুয়ারা।

এই পরিষেবার বিনিময়ে তাঁদের অর্থ দেওয়া হবে । তবে এই মর্মে এখনও কোনও নোটিফিকেশন জারি করেনি রাজ্য সরকার । আবেদনকারীরাকে অবশ্যই পশ্চিমবঙ্গের বাসিন্দা হতে হবে।  

রাজ্য সরকারের এই সিদ্ধান্ত সমাজের অর্থনৈতিকভাবে পিছিয়ে পড়া ছাত্রদের বিশেষ উপকারে আসতে পারে এমনটাই মনে করছেন ওয়াকিবহাল মহলের একাংশ। 

রাজ্য সরকারের এই পরিকল্পনা নিয়ে মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে। কারণ, অনেকেই মনে করেন, এই ধরনের ইন্টার্নশিপে যদি ভবিষ্যতে ....

চাকরির সুযোগ দেওয়া যায়, তাহলে  সেটি ভালো কারণ শিক্ষা বিশেষজ্ঞদের মতে,  ইন্টার্নশিপের চেয়ে কর্মসংস্থান সৃষ্টিই বেশি জরুরি। 

স্নাতক ও  স্নাতকোত্তরে মোট ৬০ শতাংশ নাম্বার পেলেই , পড়ুয়ারা বিভিন্ন সরকারি দপ্তরে ইন্টার্নশিপের সুযোগ পাবেন.।যোগ্যতা অনুযায়ী প্রতিমাসে  ৫০০০ টাকার বেশী দেওয়া হবে ইন্টার্নদের। 

ইন্টার্নশিপের জন্য অনলাইন মাধ্যমেই এই আবেদন করতে পারবেন পড়ুয়ারা। , তার আশপাশের কোনও সরকারি অফিসে ইন্টার্নশির্ন পের সুযোগ দেওয়া হবে তাদের।