২০২৩ সালের মধ্যই পশ্চিমবঙ্গ ডিম উৎপাদনে স্বনির্ভর হবে!! এমনটাই জানালেন রাজ্যের প্রাণী সম্পদ বিকাশ দফতরের মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ।

বর্তমানে রাজ্যের মোট ডিমের চাহিদা বছরে ১ হাজার ৪৪০ কোটি কিন্তু পশ্চিমবঙ্গে মোট উৎপাদিত ডিমের পরিমাণ ১ হাজার ২০৩ কোটি।   

অর্থাৎ চাহিদা মেটাটে গেলে এখনও  ২৩৭ কোটি ডিমের প্রয়োজন। ২০২৩ সালের ডিসেম্বরের মধ্যে তা উৎপাদন করা সম্ভব হবে। 

বর্তমানে উৎপাদিত ডিমের সিংহভাগই (৪৩.৮২%) আসে অসংগঠিত ক্ষেত্র থেকে। এর সংখ্যা হল বছরে ৬৩১ কোটি ডিম।

বাকি ৫৭২ কোটি ডিম আসে বেসরকারি ফার্ম এবং ওয়েস্ট বেঙ্গল লাইভ স্টক ডেভেলপমেন্ট কর্পোরেশন থেকে। 

তবে আগামী এক বছরে রাজ্যের অসংগঠিত ক্ষেত্রে ডিমের উৎপাদন বছরে ৭২৭ কোটিতে পৌঁছবে। সরকারি ডিমের উৎপাদন বেড়ে হবে ৪৭ কোটি। সংগঠিত ক্ষেত্রেও তা প্রায় ৫০ লাখ বাড়বে। 

এর আগে ডিমের চাহিদা মেটাতে অন্ধ্রপ্রদেশ বা পশ্চিমবঙ্গের পার্শ্ববর্তী রাজ্যগুলির উপর নির্ভর করতে হত। আগামী বছর থেকে বাইরের রাজ্যের উপর নির্ভরশীলতা থাকবে না।

প্রাণী সম্পদ দফতরের মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ বলেন, "ডিমের জন্য অন্য রাজ্যের প্রতি নির্ভরশীলতা তো থাকবে না। পাশাপাশি, রাজ্যের প্রয়োজন মিটিয়ে ডিম রপ্তানিও করা যাবে।" 

বুধবার হুগলি জেলার চুঁচুড়ায় সার্কিট হাউসে প্রাণিসম্পদ দফতর এর রিভিউ মিটিং প্রাণী সম্পদ দফতরের মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ একথা বলেন।